ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ , , ৭ রবিউস সানি ১৪৪১

আঞ্জুমানে আছাদীয়া নুরীয়া সেহাবীয়া বহদ্দার হাট শাখার ঈদে মিলাদুন্নবী মাহফিল অনুষ্টিত

কামাল হোসেন । সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: নভেম্বর ২৮, ২০১৯ ১:২৮ দুপুর

আঞ্জুমানে আছাদীয়া নুরীয়া সেহাবীয়া বহদ্দারহাট শাখার উদ্যোগে ও বহদ্দার হাট কাঁচাবাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির ব্যবস্থাপনায় ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উয্যাপন উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল গত ২৫ নবেম্বর বুধবার রাত ১১ ঘটিকায় বহদ্দারহাট পুলিশ বক্সের পাশে অনুষ্টিত হয়। বহদ্দার হাট কাঁচাবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোঃ জানে আলম এর সভাপতিত্ব এবং আঞ্জুমানে আছাদীয়া নুরীয়া সেহাবীয়া বহদ্দারহাট শাখার আহবায়ক মোঃ ইমরান হোসেনের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবী বিভাগের অধ্যাপক ড. এস এম বোরহান উদ্দীন। প্রধান বক্তা ছিলেন বাহার সিগনাল দরবারে বারিয়া শরিফের নায়েবে সাজ্জাদানশীন সৈয়দ মোহাম্মদ মোকাররম বারী। বিশেষ বক্তা ছিলেন দক্ষিন শিকলবাহা নুর আহম্মদ জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোহাম্মদ সাদ্দাম হোসাইন আল কাদেরী। বিশেষ অথিতি ছিলেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক তসকির আহমেদ। নাতে রাসুল পরিবেশনে ছিলেন শায়ের মোঃ তানভির।

মাহফিলে বক্তারা বলেন, আল্লাহর পক্ষ থেকে সৃষ্টির জন্য সর্বশ্রেষ্ট উপহার বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)। তিনি মানবজাতীর জন্য সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ট মুক্তির দূত হিসেবে এসেছেন। হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর জীবনআদর্শই হচ্ছে মানব জাতীর জন্য সর্বোত্তম আদর্শ। ইসলাম আল্লাহর মনোণীত ধর্ম। ইসলাম হানাহানির এই পৃথিবীতে শান্তির কথা বলে, সাম্যের কথা বলে। বক্তারা আরও বলেন, এই উপমহাদেশে আওলাদে রাসুল ও ওলিআল্লাহর মাধ্যমে ইসলাম এসেছে। আওলিয়াগণ শান্তির জয়গান গেয়ে এই উপমহাদেশে ইসলাম প্রচার করেছেন। বক্তারা ধর্মের নামে হানাহানী বন্দ করতে সর্ব সাধারণকে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, প্রকৃত ধার্মিক ব্যক্তি কখনো অন্য ধর্মের মানুষকে হিংসা বা কষ্ট দিতে পারে না। একজন মুসলিম কখনো অন্য ধর্মের মানুষকে কষ্ট দিতে পারেনা। এটা ইসলামের সংবিধানে নেই। সমাজ ও রাষ্ট্রের শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষা করা সকলের নৈতিক দায়ীত্ব। আসুন আমরা সেই দায়ীত্ববোধ থেকে ইসলাম ও মানবতার কল্যাণে কাজ করি।




%d bloggers like this: