বুধবার, ১২ মে ২০২১

বিক্ষোভেও দোকান খোলার অনুমতি মেলেনি

সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: এপ্রিল ৬, ২০২১ ২১:০১ পিএম

বিক্ষোভেও দোকান খোলার অনুমতি মেলেনি

সীমিত পরিসরে মার্কেট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার দাবিতে রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় বিক্ষোভ করেছেন দোকান মালিক ও কর্মচারীরা।

 

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সকালে সড়কে অবস্থান নেন তারা। তবে দোকান খোলার অনুমতি মেলেনি। 

এদিকে রাজধানীর বিভিন্ন কাঁচাবাজারে স্বাস্থ্যবিধি মানতে অভিযানে নেমেছেন উত্তর সিটি করপোরেশনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় সরকারি নির্দেশনা না মানায় কয়েকজনকে জরিমানা করা হয়।

 

সরকারি নির্দেশনায় সাত দিনের বিধি-নিষেধে বিপণিবিতান, দোকানপাট বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। তবে এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার দাবিতে দু'দিন বিক্ষোভ করে কোনো সুরাহা না হওয়ায় আজ আবারো রাজধানীর গাউছিয়া মার্কেটের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন দোকান মালিক-কর্মচারীরা। ঈদ সামনে রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান খোলার অনুমতির দাবি জানান তারা।

দোকান মালিকরা বলেন, যদি বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলার অনুমতি দেয়া হয় তাহলেও তারা কিছুটা বেচাকেনা করতে পারবেন। তারা চান, এই ঈদের সিজনে দোকান খুলুক, বেচাকেনা হোক। তারপর তারা বাসায় থাকলেও কোনো সমস্যা হবে না।

এদিকে রাজধানীর কাঁচাবাজারগুলোতে আগের মতোই চলছিল বেচাকেনা। স্বাস্থ্যবিধির বালাই না থাকায় অভিযানে নামে উত্তর সিটির ভ্রাম্যমাণ আদালত। বনানী-গুলশনা এলাকার বাজারে ঝটিকা অভিযানে নির্বাহী ম্যাাজিস্ট্রেটের নির্দেশে শুরু হয় খোলা জায়গায় দোকান স্থানান্তর। এ সময় মাস্ক না পরা ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় কয়েকজনকে করা হয় জরিমানা।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ মিয়া বলেন, ‘সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী এখানে যত কাঁচাবাজার আছে সেগুলো উন্মুক্ত স্থানে যাবে। যারা স্বাস্থ্যবিধি মানছে না তাদের আমরা জরিমানা করছি।’

দোকান মালিক সমিতি জানায়, ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্দেশনা মেনে দোকানগুলো খোলা জায়গায় সরিয়ে নেওয়ার কাজ দ্রুত শেষ করা হবে।